সম্প্রীতি বাংলাদেশের সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত

সম্প্রীতি কার্যক্রম-১
শেয়ার করুন

‘সম্প্রীতির পথে সাফল্যের অগ্রযাত্রা’ স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে সাংগঠনিক সভা করেছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ মঙ্গলবার রাত ৮ থেকে শুরু হওয়া সভা চলে রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সম্প্রীতি বাংলাদেশ-এর আহবায়ক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আলী হাবিবের সঞ্চলনায় বক্তব্য রাখেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, যুগ্ম আহবায়ক ও নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী সিকদার, ইউজিসির সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুল মান্নান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার, বিমান বড়ুয়া, অসিম সরকার, বিধান চন্দ্র দাস, মার্টিন অধিকারী, জাকির হোসেন, ড.নাসিম আকতার, আসাদুজ্জামান চৌধুরী, নিরঞ্জন রায়, মিহির কান্তি ঘোষাল, তাপস হালদার, বিপ্লব পাল, সাইফ আহমেদ প্রমুখ।

সভায় সংগঠনটির আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশে অরাজকতা তৈরি ষড়যন্ত্র হতে পারে। এজন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। দেশের মানুষ যাতে ষড়যন্ত্রকারীদের গুজবে কান না দেয় এবিষয়ে জনসচেতনতা তৈরি করতে হবে।

সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল বলেন, নির্বাচন এলেই ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি দেশে অস্থিরতা তৈরি করতে প্রতি মুহূর্তে ষড়যন্ত্র করে। আগামী সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা আর না হয়, সেব্যাপারে বিশেষ লক্ষ্য রাখার জন্য একটি সেল গঠনের সিদ্ধান্ত হয় বলেও জানান সংগঠনটির সদস্য সচিব।

এসময় বক্তরা দেশে সম্প্রীতির পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সংগঠনের কার্যক্রম বৃদ্ধির ওপর জোর দেন। ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’র কার্যক্রম প্রান্তিক অঞ্চলে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে সকল জেলা পর্যায়ে কমিটি গঠনের গুরুত্বারোপ করেন তারা। এছাড়া সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে বড় সমাবেশ করার বিষয়ে আলোচনা হয়।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.