২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১:১৮
২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১:১৮

, ,

‘সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার ঠাঁই নাই’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে একদল সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী আবারও সম্প্রীতির বাংলাদেশকে অশান্ত করতে চায়। বুধবার (২২ নভেম্বর) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত এক সমাবেশে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানানো হয়। সমাবেশ থেকে দৃঢ়কণ্ঠে ঘোষণা করা হয় সম্প্রীতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার ঠাঁই নাই, ভবিষ্যতেও থাকবে না।
বক্তারা আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, গারো, সাঁওতাল সকলে মিলে নয় মাস যুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিল। ‘৭২ সালের সংবিধানে জাতীয় মূলনীতির অন্যতম ছিল ধর্মনিরপেক্ষতা ও বাঙালি জাতীয়তাবাদ। কিন্তু পঁচাত্তর-পরবর্তী সময়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রতি বারবার আঘাত এসেছে, কিন্তু প্রতিবারই সাম্প্রদায়িক শক্তি পরাজিত হয়েছে। আবারো নির্বাচনকে সামনে রেখে হিংস্র শকুনের দল বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির উপর আঘাত হানতে চায়। জাতির পিতার আদর্শ অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে নৌকাকে বিজয়ী করার আহ্বান জানান তারা।

বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ আয়োজিত এই নাগরিক সমাবেশে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত হয়ে সংহতি প্রকাশ ও বক্তব্য প্রদান করেন। সম্প্রীতি বাংলাদেশ-এর আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব ডা: মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীলের সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন- বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহরিয়ার কবির, সভাপতি, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি, গোলাম কুদ্দুস, সভাপতি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, সাদ্দাম হোসেন, সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, শ্রী জে এল ভৌমিক, সভাপতি, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক, মানিকগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ, অধ্যাপক নিজামুল হক ভুইয়া, সভাপতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, ডা. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, সভাপতি, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ, শ্যামল দত্ত, সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় প্রেস ক্লাব, অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, সভাপতি, পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ, অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক, সম্প্রীতি বাংলাদেশ, অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, উপ-উপাচার্য, ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয়, অধ্যাপক মিহির লাল সাহা, প্রভোস্ট, জগন্নাথ হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, আশরাফ আলী, যুগ্ম সম্পাদক, জাতীয় প্রেস ক্লাব, ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয়, অধ্যাপক ডা. মাহবুবুর রহমান বাবু, প্রচার সম্পাদক, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন, এফ এম শাহীন, সাধারণ সম্পাদক, গৌরব ৭১, ব্যারিস্টার ড. ফারজানা মাহমুদ, শ্রী সজল কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগ, সিনিয়র সাংবাদিক শ্রী দিপক আচার্য, সিনিয়র সাংবাদিক ও লেখক সালাম আজাদ, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান লিটু, সহকারী প্রোক্টর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, নয়ন আহমেদ, সভাপতি, শ্লোগান ৭১, আশিকুর রহমান অমি, সাধারণ সম্পাদক, শ্লোগান ৭১, শ্রী রবিন মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক, জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন ও আরো ৫০টি সংগঠন সংহতি প্রকাশ করে।

আরও পড়ুন..