ষড়যন্ত্রের শিকল ভেঙ্গে ঐক্যবদ্ধ

ষড়যন্ত্রের শিকল ভেঙ্গে ঐক্যবদ্ধ

মেইন স্লাইড
এক মহাঅমানিশার রাতে আমরা হারিয়েছি আমাদের পিতাকে, হারিয়ে গিয়েছিল আমাদের পথের দিশা। হিংস্র শকুনের দল আমাদের দাবিয়ে রাখতে চেয়েছিল নানা কুটকৌশলে। বদলে দিতে চেয়েছিল ইতিহাসের গতিপথ। বছরের পর বছর আমরা খুঁজে ফিরছি আমাদের হারিয়ে যাওয়া আত্মপরিচয়।
কালো অশুভ শক্তির ষড়যন্ত্র এখনো বন্ধ হয়নি। যখনই সুযোগ পেয়েছে হিংস্র বিষধর নাগিনীরা ছোবল মারতে চেয়েছে, ছিনিয়ে নিয়েছে বহু আলোর পথের যাত্রীকে। আজ আমরা দাঁড়িয়ে আছি এক যুগ সন্ধিক্ষণে। মরণ কামড় দেওয়ার জন্য তৈরি হিংস্র শ্বাপদের দল। আমার শত বছরের ঐতিহ্য, আমার অহংকার আজ হুমকির মুখে। শ্বাপদকুলের সঙ্গে আমাদের মোকাবেলা অবশ্যম্ভাবী। আর এই মোকাবেলাতেই নির্ণয় হবে আগামীর গতিপথ। আমাদের ভাবতে হবে আমরা বহমান সময়ের সঙ্গে আমাদের যে যাত্রা প্রগতির রথে চড়ে অগ্রগতির পথে, আমরা কি সে যাত্রা করবো ইতিহাসের উল্টো পথে?
সময় এসেছে আমাদের আবারো ১৯৫২, ১৯৫৪ ১৯৬৯ আর একাত্তরের মত একতাবদ্ধ হয়ে শকুনের দলকে রুখে দেওয়ার। আমার হাজার বছরের ইতিহাস মিলন আর সম্প্রীতির ইতিহাস। ঘৃণ্য সাম্প্রদায়িকতার সেখানে স্থান নেই, স্থান নেই একাত্তরের পরাজিত শক্তির। ধর্মান্ধ, সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখে দিতে সমাজের সর্বস্তরে আজ ঐক্য প্রয়োজন। ধর্মের দোহাই দিয়ে যারা আমাদের মুক্তিযদ্ধের আদর্শ জলাঞ্জলি দিতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে। ধর্ম যার যার, বাংলাদেশ আমার- এই বোধ আজ নতুন করে ছড়িয়ে দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *