প্রবন্ধ

বাংলাদেশ রাষ্ট্র গঠনে হাজার বছরের বাস্তবতাই হচ্ছে ভিত্তি

আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী
ইতিহাস একটি বহতা নদীর মতো। যুগে যুগে নদীর মতোই সে বাঁক নেয়। কখনো তাতে নদীর মতোই ভাঙন ধরে। তাতে আবার কখনো নদীর মতো পলি পড়ে এবং নতুন ভূখণ্ড গড়ে ওঠে। সম্প্রতি ঢাকায় ছয় দফা নিয়ে আলোচনায় রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক শান্তনু মজুমদার বলেছেন, ‘জাতি একটি আবেগী ধারণা, রাষ্ট্র হচ্ছে কঠিন বাস্তব। ছয় দফায় জাতি হিসেবে আমাদের আবেগ-অনুভূতির সূচনা হয়েছিল, ভাষা আন্দোলন থেকে পরবর্তী সময়ে ছয় দফা একটি কংক্রিট ধারণা বাংলাদেশ রাষ্ট্র কেমন হতে পারে।’ শান্তনু মজুমদার সঠিক কথাই বলেছেন। কিন্তু তাঁর সঙ্গে আমার একটু মতভেদ আছে। জাতি কখনো আবেগ দিয়ে তৈরি হয় না। জাতি গঠনের জন্য নৃতাত্বিক, সাংস্কৃতিক ও …
আরো পড়ুন

সতর্ক হওয়ার সময় পেরিয়ে যাচ্ছে

মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আলী শিকদার (অব.)
বাংলাদেশ যে লক্ষ্যে ও উদ্দেশ্যে স্বাধীন হয়েছে তা যাতে বাস্তবায়িত হতে না পারে তার জন্য অনবরত যুদ্ধ করে যাচ্ছে এদেশীয় একাত্তরের পরাজিত গোষ্ঠী এবং তাদের বংশধররা। এই যুদ্ধের বহিঃপ্রকাশ বিভিন্ন সময়ে, বিভিন্ন পন্থায় ও রূপে দেখা গেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে স্বাধীন বাংলাদেশকে নিয়ে যাত্রা শুরু করলেন। জ্যোতির্ময় দার্শনিক বঙ্গবন্ধু জানতেন সঠিক লক্ষ্য নির্ধারণ ও তাতে অটুট থাকা এবং সে অনুসারে কাজ হলেই শুধু সফলতা অর্জন করা সম্ভব, সেটি ব্যক্তির জন্য যেমন প্রযোজ্য, রাষ্ট্রের বেলায় সেটি আরো অতীব গুরুত্বপূর্ণ। তাই তিনি বাহাত্তরের সংবিধানের শুরুতে দ্বিতীয় লাইনে রাষ্ট্রের লক্ষ্য নির্ধারণ করে …
আরো পড়ুন

মানুষের আস্থায় ৭২ বছর

আবদুল মান্নান
২৩ জুন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এই শুভ দিনে এই দলের প্রতিষ্ঠার সঙ্গে যাঁরা জড়িত ছিলেন, তাঁদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। স্মরণ করছি সেই মহাপুরুষ, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যিনি এই দল গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন। শুরুতে পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী মুসলিম লীগ, তারপর পূর্ব পাকিস্তান আওয়ামী লীগ, যা উপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ ও প্রাচীন রাজনৈতিক দল। সাতচল্লিশ-পূর্ববর্তী সময়ে যে কয়টি রাজনৈতিক দল গড়ে উঠেছিল তার মধ্যে ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টি, ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস, সর্বভারতীয় মুসলিম লীগ অন্যতম। এসব দলের মধ্যে কমিউনিস্ট পার্টি বহুধাবিভক্ত হয়েছে। কংগ্রেসের নেতৃত্বে ভারত স্বাধীন হওয়ার পর দলটি দেশ শাসন করেছে …
আরো পড়ুন

বাজেট কার জন্য

ড. আতিউর রহমান
আসন্ন ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট সংসদে উত্থাপিত হওয়ার পর থেকেই অর্থনীতিবিদসহ বিশেষজ্ঞমহল বাজেট পর্যালোচনা করছেন। অনেকেই এই বাজেটকে নিছক ‘ব্যবসাবন্ধব’ বলছেন। তাঁদের এমন বিশ্লেষণের অর্থ দাঁড়ায় ব্যবসা-বাণিজ্য যেন হাওয়ার মধ্যে হয়। এগুলোর সঙ্গে মানুষের কোনো সংযোগই নেই। আমাদের ভুলে গেলে চলবে না যে অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার মেয়াদকালে মোট বিনিয়োগের ৮০ শতাংশ ব্যক্তি খাত থেকে আসবে। কাজেই ব্যক্তি খাতের শিল্প ও ব্যবসাগুলোর উন্নতি হলে সেই উন্নতির সুফল নিশ্চয়ই সাধারণ মানুষও পাবে। যদি ব্যক্তি খাতের বিনিয়োগ বাড়ে, যদি শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটে, তখন কর্মসংস্থান বাড়বে। মানুষের হাতে টাকা যাবে। এতে একদিকে এই করোনাকালে তাদের অর্থনৈতিক সুরক্ষা নিশ্চিত করা যাবে। …
আরো পড়ুন

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস ২০২১

ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল
আজ ১০ জুন, আন্তর্জাতিক ন্যাশ দিবস। বিশ্ব যখন কোভিড অতিমারিতে ব্যতিব্যস্ত, তখন অজান্তেই আড়ালে চলে গেছে অন্য প্যান্ডেমিকটি, যা পৃথিবীব্যাপী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে গত বেশ কয়েক দশক ধরে। ধারণা করা হয়, পৃথিবীর ১৫ শতাংশের মতো মানুষ এই ফ্যাটি লিভারে আক্রান্ত, যার থামাথামির কোনো লক্ষণ আপাতত আমাদের সামনে দৃশ্যমান নয়। জটিল সব অংক, বিজ্ঞানের ভাষায় যার নাম ম্যাথেমিটিক্যাল মডেলিং, বলছে ২০৩০ নাগাদ কমার বদলে ফ্যাটি লিভার বিশ্বব্যাপী বাড়বে ৬০ শতাংশের মতো। বাংলাদেশও এর কোনো ব্যতিক্রম ঘটছে না। একটা সময় ছিল যখন হেপাটাইটিস বি ভাইরাস ছিল এদেশে লিভার সিরোসিস আর লিভার ক্যান্সারের মতো লিভারের জটিল যত রোগের এক …
আরো পড়ুন