গাফফার চৌধুরীর প্রতি সম্প্রীতি বাংলাদেশের শ্রদ্ধা

সম্প্রীতি বাংলাদেশের কার্যক্রম
শেয়ার করুন

‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’গানের রচয়িতা, সাংবাদিক-সাহিত্যিক ও সম্প্রীতি বাংলাদেশের প্রধান পৃষ্টপোষক আবদুল গাফফার চৌধুরীকে শ্রদ্ধা জানিয়েছে সম্প্রীতি বাংলাদেশ।

শনিবার দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গাফফার চৌধুরীর মরদেহে শ্রদ্ধা জানান সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সদস্য সচিব ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নিল। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান, সম্প্রীতি বাংলাদেশের নির্বাহী সদস্য রেভারেন্ড মার্টিন অধিকারী, জয়শ্রী বন্দ্যোপাধ্যায়, বিপ্লব পাল, সাইফ আহমেদ, তাপস হালদার, ধীমান রায়, অনয় মুখার্জী, শফিক রেঞ্জার প্রমুখ।

এছাড়া অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার এর নেতৃত্বে সম্প্রীতি বাংলাদেশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট, ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে শহীদ মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ইউনিট ও অভিষেক ঘোষ এর নেতৃত্বে ইব্রাহীম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের পক্ষ থেকেও আলাদা ভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে বাংলাদেশ প্রগতিশীল, সৃজনশীল ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একজন অগ্রপথিককে হারালো। তার একুশের অমর সেই গান বাঙালি জাতিকে ভাষা আন্দোলন ও মুক্তির আন্দোলনে অসীম সাহস ও প্রেরণা যুগিয়েছিল। আবদুল গাফফার চৌধুরী তাঁর কালজয়ী গান, গল্প-কবিতা-উপন্যাসেও প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে চির অম্লান হয়ে থাকবেন।

কয়েক মাস চিকিৎসাধীন থেকে গত ১৯ মে লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা যান ৮৮ বছর বয়সী গাফফার চৌধুরী। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান স্বাধীনতা পদকে ভূষিত গাফফার চৌধুরী স্বাধীনতার পর থেকে প্রবাসে ছিলেন।


শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.